তাতহীরের আয়াত ও হযরত ফাতেমা

তাতহীরের আয়াত ও হযরত ফাতেমা

তাতহীরের আয়াত ও হযরত ফাতেমা

হজরত ফাতিমা, মার্জিয়া, সিদ্দিকা, মোহাদ্দেসা, বাতুল, উম্মে আবিহা, যাহরা, মুবারেকা, যাকিয়া, তাহেরা, রাযিয়া, Shia, Sunni, Islam, Quran, Karbala, najaf, kufa, mashad, samera, madina, makka, jannatul baqi, kazmain, ali, Fatima, hasan, hussain, mohammad, imam mahdi
বহু সংখ্যক সুন্নী আলেম ও মুফাসসির এবং প্রায় সকল শিয়া মুফাসসির ও হাদীস বর্ণনাকারী নির্দ্বিধায় স্বীকার করেছেন যে তাতহীরের আয়াত তথাঃ
إِنَّمَا يُرِيْدُ اللهُ لِيُذْهِبَ عَنْكُمُ اْلْرِّجْسَ أَهْلَ اْلْبِيْتِ وَ يُطَهِّرَكُمْ تَطْهِيْرًا
হযরত মুহাম্মদ (সা.) সহ হযরত আলী,ফাতেমা,হাসান ও হুসাইনকে উদ্দেশ্য করে অবতীর্ণ হয়েছে।(আমালী,তুসী,১ম খণ্ড,পৃ. ১৫৪,১৬৯,১৭০। আমালী,সাদুক,পৃ. ৩৮১,৩৮২। উসুলে কাফি,১ম খণ্ড,পৃ. ২৮৭। ফুসুল আল মুখতারা,শেখ মুফিদ (কোম প্রিন্ট ),পৃ. ২৯,৩০) এই আয়াতে আহলে বাইতের উদ্দেশ্য হযরত মুহাম্মদ (সা.)-এর বংশধর এই নিষ্পাপ ব্যক্তিবর্গ। আর বিশিষ্ট মুফাসসিরদের মতে তাদের নিষ্পাপত্বের বিষয়টিও প্রমাণ করে। তা ছাড়া আরো প্রচুর হাদীস ও দলিল প্রমাণাদি এ ক্ষেত্রে বিদ্যমান।
আগ্রহী ব্যক্তিরা এ ব্যাপারে আরো অধিক জানার জন্যে বিস্তারিত বিবরণ সমৃদ্ধ গ্রন্থসমূহ খুলে দেখতে পারেন। আমরা এখানে একটিমাত্র হাদীস বর্ণনা করাই যথেষ্ট মনে করছি।
“ নাফে বিন আল হিমরী বলেন : আমি আট মাস মদীনাতে বসবাস করেছিলাম। তখন প্রতিদিন রাসূল (সা.)-কে দেখতাম যখন তিনি ফজর নামাজ আদায়ের জন্যে ঘরের বাইরে আসতেন তখন সর্বপ্রথম ফাতেমার ঘরের দরজার সন্নিকটে গিয়ে বলতেন :
أَلْسَّلاَمُ عَلَيْكُمْ يَا أَهْلَ اْلْبَيْتِ وَ رَحْمَةُ اللهِ وَ بَرَكَاتُهُ ,أَلْصَّلاَةُ ,إِنَّمَا يُرِيْدُ اللهُ لِيُذْهِبَ عَنْكُمُ اْلْرِّجْسَ أَهْلَ اْلْبَيْتِ وَ يُطَهِّرَكُمْ تَطْهِيْرًا
অর্থাৎ“ আসসালামু আলাইকুম ওয়া রাহ্মাতুল্লাহি ওয়া বারাকাতুহ্ , হে আহলে বাইত। নামাজের সময় হয়েছে। নিশ্চয়ই আল্লাহ্ ইচ্ছা করেছেন তোমাদের থেকে সকল ধরনের পাপ - পঙ্কিলতা দূরীভূত করতে হে আহলে বাইত এবং তোমাদেরকে পুত - পবিত্র করতে। ”( কাশফুল গুম্মাহ্,২য় খণ্ড,পৃ. ১৩। উক্ত রেওয়ায়েতের কাছাকাছি বর্ণনায় আমালী,সাদুক,১ম খণ্ড,পৃ. ৮৮-এ বর্ণিত আছে। আমালী,তুসী,১ম খণ্ড,পৃ. ২৫৭ এবং ২য় খণ্ড,পৃ. ১৭৭,১৭৮। আমালী,মুফিদ,পৃ. ১৮)