প্রতারণা করে প্রশ্ন তুলেছে আমরা কেন সন্দিহান: সর্বোচ্চ নেতা

'শ্রমিক সপ্তাহ' উপলক্ষে আজ (বুধবার) হাজার হাজার শ্রমিক সঙ্গে দেখা করতে গেলে ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ি বলেছেন, আমেরিকা নিজেই আমাদের সঙ্গে প্রতারণা করার পর এখন প্রশ্ন তুলছে আমরা কেন তাদের প্রতি সন্দিহান।

প্রতারণা করে প্রশ্ন তুলেছে আমরা কেন সন্দিহান: সর্বোচ্চ নেতা

'শ্রমিক সপ্তাহ' উপলক্ষে আজ (বুধবার) হাজার হাজার শ্রমিক সঙ্গে দেখা করতে গেলে ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ি বলেছেন, আমেরিকা নিজেই আমাদের সঙ্গে প্রতারণা করার পর এখন প্রশ্ন তুলছে আমরা কেন তাদের প্রতি সন্দিহান।

তিনি আরও বলেছেন, "ব্যাংকগুলো ইরানের সঙ্গে লেনদেন করুক-এ কথা তারা কাগজে লিখেছে। কিন্তু বাস্তবে তারা ইরান সম্পর্কে ব্যাপক ভয়-ভীতি সৃষ্টি করছে যাতে লেনদেন না হয়। একজন মার্কিন কর্মকর্তা বলেছেন, নিষেধাজ্ঞার কাঠামো অক্ষুন্ন রাখা হয়েছে যাতে বিদেশি বিনিয়োগকারীরা ইরানে বিনিয়োগ করতে ভয় পায়।"

আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ি বলেন, দেশে উৎপাদন বাড়ানোর বিষয়টিকে পবিত্র হিসেবে গণ্য করতে হবে। যেসব পণ্য দেশে উৎপন্ন হয় সেগুলো আমদানি করা একেবারেই উচিত হবে না। দেশে উৎপাদিত পণ্য থাকার পরও বিদেশি পণ্যের ব্যবহারকে মূল্যবোধের পরিপন্থী হিসেবে গণ্য করা উচিত বলে তিনি মন্তব্য করেন। সর্বোচ্চ নেতা বলেন, ইসলামি বিপ্লব চলাকালে এবং বিপ্লব পরবর্তী সময়ে সব ক্ষেত্রে শ্রমিকদের জোরালো উপস্থিতি ছিল। এ কারণে সব শ্রমিককে ধন্যবাদ জানান তিনি।

তিনি বলেন, "সমাজে যারা যে কাজই করুক না কেন, সবাই শ্রমিক। একজন ব্যবস্থাপক, একজন অধ্যাপক ও অন্য পেশাজীবীরাও শ্রমিক।একজন মানুষ ও সমাজ-উভয়ের জন্যই কাজ গঠনমূলক। আমাদের কাজের পরিধি ও মান বাড়াতে হবে।"