ফ্রান্সে হিজাব পরার অপরাধে মুসলিম নারীর ৬ মাসের কারাদণ্ড

হিজাব পরিহিতা ঐ মুসলিম নারীর বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে যে, ফ্রান্সের দক্ষিন অঞ্চলীয় বন্দর নগরী মার্সেই’য়ে তল্লাশী চালানোর সময় তিনি নিরাপত্তা বাহিনী’র এক সদস্যের সাথে দূর্ব্যবহার করেন এবং তার হাতে কামড় দেন।

 ফ্রান্সে হিজাব পরার অপরাধে মুসলিম নারীর ৬ মাসের কারাদণ্ড

হিজাব পরিহিতা ফরাসী এক মুসলিম নারীকে ৬ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছে ফ্রান্সের দক্ষিন অঞ্চলের একটি আদালত।
হিজাব পরিহিতা ঐ মুসলিম নারীর বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে যে, ফ্রান্সের দক্ষিন অঞ্চলীয় বন্দর নগরী মার্সেই’য়ে তল্লাশী চালানোর সময় তিনি নিরাপত্তা বাহিনী’র এক সদস্যের সাথে দূর্ব্যবহার করেন এবং তার হাতে কামড় দেন।
মুসলিম এ নারী, ফ্রান্সে নেকাব পরার উপর নিষেধাজ্ঞা আইনকে মুসলিম নারীদের স্বাধীনতা হরণ বলে আখ্যায়িত করে এ আইনের নিন্দা জানিয়েছেন।
কয়েক বছর পূর্বে মুসলমানদের তীব্র বিরোধিতা সত্ত্বেও ফ্রান্স সরকার হিজাব বিরোধী এ আইন পাশ করে। আইনের ভিত্তিতে মুসলিম নারীরা কোন গণস্থানে নেকাব পরে আসতে পারবে না।
ঐ আইন ভঙ্গকারী ১৫০ ইউরো জরিমানার পাশাপাশি নাগরিক প্রশিক্ষণ কোর্সে অংশগ্রহণে বাধ্য থাকবে, এমনকি কারাদণ্ডেও দণ্ডিত হতে পারে।
এদিকে কিছু কিছু মুসলিম নারী অর্থদণ্ড পরিশোধ করে হলেও নেকাব ব্যবহারের জন্য তাদের প্রস্তুতির কথা ঘোষণা করেছে।
উল্লেখ্য, ফ্রান্সে প্রায় ৮০ লক্ষ মুসলমান বাস করে।
সূত্রঃ বার্তা সংস্থা আবনা