বারো ইমামি শিয়াদেরকে ইসলামের শত্রু হিসেবে পরিচয় করানোর অপচেষ্টায় আলে সৌদ

‘নায়েল আল-মুসাভি’ বাগদাদের আল-খাললানী মসজিদে অনুষ্ঠিত ঈদুল আযহার নামাযের খোতবায় বলেছেন : সৌদিরা শিয়া বিরোধী বই প্রকাশ এবং হাজীদের মাঝে সেগুলোকে বিতরণ করছে। এ পদক্ষেপ সাম্প্রদায়িক সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে এবং অন্যান্য ধর্ম ও মাযহাবের বিষয়ে সৌদি সরকারের

 বারো ইমামি শিয়াদেরকে ইসলামের শত্রু হিসেবে পরিচয় করানোর অপচেষ্টায় আলে সৌদ

‘নায়েল আল-মুসাভি’ বাগদাদের আল-খাললানী মসজিদে অনুষ্ঠিত ঈদুল আযহার নামাযের খোতবায় বলেছেন : সৌদিরা শিয়া বিরোধী বই প্রকাশ এবং হাজীদের মাঝে সেগুলোকে বিতরণ করছে। এ পদক্ষেপ সাম্প্রদায়িক সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে এবং অন্যান্য ধর্ম ও মাযহাবের বিষয়ে সৌদি সরকারের অবস্থানের পরিপূর্ণ বিরোধী।
তিনি বলেন : সৌদিরা ‘নিজের শত্রুকে চেনো’ শিরোনামে বই প্রকাশ ও বিতরণ করছে। ঐ বইতে বারো ইমামি শিয়াদেরকে ইসলামের শত্রু হিসেবে পরিচয় করানো হয়েছে।
বাগদাদের আল-খাললানী মসজিদের খতিব আরো বলেন : সৌদিরা ভুলে গেছে যে, ইসরাইল হচ্ছে প্রকৃত শত্রু। আমি জানি না যে, বাদশাহ আব্দুল্লাহ এ বইয়ের বিষয়ে অবগত কি না? তবে এ বইয়ে আলোচ্য বিষয়াদি সাম্প্রদায়িক সমস্যা বৃদ্ধি করবে।
ইরাকের প্রধানমন্ত্রী নূরী মালেকী’র যুক্তরাষ্ট্র সফর এবং এদেশের কর্মকর্তাদের সাথে সম্ভাব্য সাক্ষাতকে স্বাগত জানিয়ে তিনি বলেন : আমরা আশাবাদী যে, এ সাক্ষাতে কাঙ্ক্ষিত উদ্দেশ্য পূরণ হবে। আমরা ইসরাইল ব্যতীত বিশ্বের সকল দেশের সাথে সম্পর্ক বজায় রাখতে চাই।
এদিকে নাজাফের ফাতিমিয়্যাহ ইমামবাড়ীতে অনুষ্ঠিত ঈদের নামাযের খোতবায় খতিব ‘সাদরুদ্দীন কোবাঞ্চি’ নূরী মালেকীর যুক্তরাষ্ট্র সফরকে স্বাগত জানিয়ে বলেছেন : নূরী মালেকীর যুক্তরাষ্ট্র সফরের পদক্ষেপ সঠিক এবং যুক্তরাষ্ট্রের সাথে গঠনমূলক সম্পর্ক স্থাপনের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ এক উদ্যোগ।
তিনি মক্কায় সৌদিদের বিভিন্ন ফেতনা সৃষ্টিকারী পদক্ষেপ এবং ‘নিজের শত্রুকে চেনো’ শিরোনামে শিয়া বিরোধী বই বিতরণের কথা উল্লেখ করে বলেন : অন্যান্য ধর্ম ও মাযহাবের ক্ষেত্রে অবস্থান সম্পর্কে সৌদি সরকার যে দাবী করে এ পদক্ষেপ তার পরিপূর্ণ পরিপন্থী।
মারজাগণের বিরুদ্ধে যে বিরোধিতা করা হয় তার নিন্দা জানিয়ে তিনি তাকফিরী ফতওয়াসমূহের নিন্দা ও শিয়া বিরোধী বই বিতরণের বিরোধিতা করার জন্য সুন্নি আলেমদের প্রতি আহবান জানান।
ফিলিস্তিন ও জায়নবাদী ইসরাইলের মাঝে সমঝোতার উদ্দেশ্যে বৈঠককে ফলাফলহীন আখ্যায়িত করে তিনি বলেন : জায়নবাদী ইসরাইল জোরপূর্ব ফিলিস্তিন ভূখণ্ডকে দখল করেছে এবং তাদেরকে অবশ্যই ফিলিস্তিন ছাড়তে হবে।
মালয়েশিয়ার শিয়াদের উপর এদেশের সরকার কর্তৃক চাপ প্রয়োগ এবং কারবালার মাটি রাখার অভিযোগে একজন পেশ ইমামকে গ্রেফতারের নিন্দা জানিয়ে জনাব কোবাঞ্চি বলেন : মালয়েশিয়া সরকার শিয়াদের বিরুদ্ধে শত্রুতাপূর্ণ পদক্ষেপ নিলেও তারা তাদের দেশে মূর্তি পূজায় বাধা দেয় না। মূলতঃ তারা এদেশে শিয়া মাযহাবের প্রসারের ভয়ে এ ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করছে।
বলাবাহুল্য, চলতি হজ্বের মৌসুমে বহু সংখ্যক শিয়া মুসলিম হজ্ব পালনার্থে মক্কায় অবস্থান করছেন। তারা বাইতুল্লাহিল হারামে ওয়াহাবী গোষ্ঠী কর্তৃক শিয়া বিরোধী বিভিন্ন গ্রন্থ বিতরণ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন।
এ দলটি যে সকল বই হাজীদের মাঝে বিতরণ করছে তার মধ্যে ইয়াকুব বাদর আল-কাত্তামী রচিত ‘আল-কাফি ফি তাহযিরিল বাশারিয়্যাহ মিন দীনিল ইসান আশারিয়াহ; আস-সারাতানুশ শিয়ী ওয়াল-লুবী আর-রাফেজী’ উল্লেখযোগ্য।
সূত্রঃ বার্তা সংস্থা আবনা