মুহররম নিয়ে এলো শহীদে কারবালা

কারবালা, ইমাম হুসাইন, এজিদ,  নওহা, জয়নাব, হজরত আব্বাস, আলী আকবর,
মুহররম নিয়ে এলো শহীদে কারবালা সারা আলমের চোখে ঝরে অশ্রু ধারা ছেড়ে ছিলো কাফেলা বারে বারে, পুনরায় গিয়েছিল সেখানে ফিরে নবীজীর নূর নিয়ে করলি খেলা, পরাজয় হলো তোর গলার মালা মুহররম নিয়ে এলো শহীদে কারবালা।

মুহররম নিয়ে এলো শহীদে কারবালা
মুহম্মদ আনিসুজ্জামান
মুহররম নিয়ে এলো শহীদে কারবালা
সারা আলমের চোখে ঝরে অশ্রু ধারা
ছেড়ে ছিলো কাফেলা বারে বারে, পুনরায় গিয়েছিল সেখানে ফিরে
নবীজীর নূর নিয়ে করলি খেলা, পরাজয় হলো তোর গলার মালা
মুহররম নিয়ে এলো শহীদে কারবালা।
নামিলো বাদলও লাল, মাটিতে কাটিলে লাল
হয়েছিল লালেরই সমাহার
পানি থেকে শুরু করে তিন দিন অনাহারে
কেঁদে ছিলো ছোট শিশু আছগর
তাঁকেও ছাড়েনি তারা তীরের আঘাত দ্বারা
করেছিল বক্ষ জারে জার
কেঁদে ছিলো ছোট শিশু আছগর
যাননি তিনি যুদ্ধ করিবারে
তীর মারে কাফিরেরা বক্ষ জুড়ে
নবীজীর নূর নিয়ে করলি খেলা, পরাজয় হলো তোর গলার মালা
মুহররম নিয়ে এলো শহীদে কারবালা।
শহীদী শুধা পানে মর্যাদা উচ্চ স্থানে
শহীদ পেল মর্যাদায় পূর্ণতা
বিজয় হয়েছে বলে ঠকলি তোরা সকলি
চিরতরে পরাজয় গলে পর
কঠিন মুহূর্ত তরে
থাকবো ঈমানী পরে
কেঁদে বলে কারবালা বারে বার
ছেড়ে ছিলো কাফেলা বারে বারে, পুনরায় গিয়েছিল সেখানে ফিরে
নবীজীর নূর নিয়ে করলি খেলা, পরাজয় হলো তোর গলার মালা
মুহররম নিয়ে এলো শহীদে কারবালা।
মজলুম কাফেলাতে যাইনুল আবেদীন চলে সাথে
ঘুরে ছিলো অলিগলি বারে বার
নিদারুণ ব্যথা বুকে
শহীদী মস্তক সাথে
কেঁদে কেঁদে কাফেলা জারে জার
আহারে কূফাবাসী তোরা এতো সর্বনাশী
নবীজীর বাগান করলি উজাড়
কেঁদে কেঁদে জারে জার
ছেড়ে ছিলো কাফেলা বারে বারে, পুনরায় গিয়েছিল সেখানে ফিরে
নবীজীর নূর নিয়ে করলি খেলা, পরাজয় হলো তোর গলার মালা
মুহররম নিয়ে এলো শহীদে কারবালা।
মামদূহ আমায় দিন
ফিরে সেই দিন
যেতে আমি চাই
শহীদে কারবালায়
তব করুণায় চাই
দেখি ইয়াযীদ কোথায়?
সূত্রঃ ইন্টারনেট

اشتراک گذاری: 

নতুন কমেন্ট যুক্ত করুন

Fill in the blank.